নিজেকে প্রফেশনাল লুক দিবেন যেভাবে

0
18

আমরা এখন এমন এক যুগে বসবাস করছি যেখানে পোশাক আসাকের কদর বেশ। গত শতাব্দী থেকে পুরুষরা তাদের পোশাকের ব্যাপারে যেন অনেক সচেতন হয়ে উঠেছে। সে ক্ষেত্রে সঠিক নিয়মে জামা কাপড় পড়াটাও গুরুত্বপূর্ণ।

আবহাওয়া যখন অনুকূলে থাকে তথাপি শুষ্ক থাকে তখন অফিসের উদ্দেশ্যে আপনি নিশ্চয় একটি ক্লাসি প্রফেশনাল লুক পেতে চাইবেন। বসন্তকাল এই ক্ষেত্রে হয়ত সবচেয়ে উপযোগী সময় আপনার এই লুকের। আপনার ক্লাসি প্রফেশনাল লুকের কারণে কখন কিভাবে আপনার ব্যবসার উন্নতি কিংবা অফিসে আপনার পদন্নোতিটা হয়ে যায়!

পকেট স্কয়ারের কথা ভুলেন না যেন

সাদা রঙের পকেট স্কয়ার যে কোনো স্যুটের সাথে যাবে। আর সেমি ফর্মাল কিংবা ফর্মাল এ ক্ষেত্রে বেশি বোঝা যাবে। সুতি কিংবা লিনেনের পকেট স্কয়ার তথা রুমাল ব্যবহার করা হয়ে থাকে সাধারণত। মজার ব্যাপার হল এই পকেট স্কয়ার আসলে শো-অফের জন্য। আপনার শার্ট বা প্যান্টের পকেটে আরেকটি রুমাল রাখবেন যা দিয়ে আপনি প্রয়োজনের সময় কাজ চালাবেন। আর পকেট স্কয়ার দিয়ে আপনি বোঝাচ্ছেন যে আপনার কাছে রুমাল আছে যা কিনা আপনি আপনার চাহিদা মত ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া কোনো সুন্দরী নারীর সাথে ধরুন আপনি খেতে বসেছেন। তখন অসাবধানতাবশত খাবার পড়ে গেল। তখন আপনাকে ন্যাপকিনের পিছনে আর ছুটতে হল না পকেট স্কয়ার থাকার কারণে।

মিলিয়ে নিন রঙ্গের কম্বিনেশনটাও

নীল ও বাদামী রঙের কম্বিনেশনটা দেখা গিয়েছে সর্বদা জয়ী অন্য রঙ্গের কাছে। এই কম্বিনেশনটা বেশীরভাগ লোককেই মানায়। তাই এই কম্বিনেশনের কিছু পড়লে তা আপনাকে আসলে মানিয়ে কিনা তা নিয়ে ভাবা ভাবির তেমনটা প্রয়োজন নেই। কিন্তু হে, এটা অবশ্যই মাথায় রাখবেন যে কম্বিনেশনটা সঠিক হয়েছে কিনা। অর্থাৎ নীল এবং বাদামী পড়লেন, এ ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন যে রঙ দুটি যেন আলাদা আলাদা ভাবে তাদের প্রভা বিস্তার করতে সক্ষম। যদি নীল রঙ্গটা গাঢ় হয় তবে হালকা বাদামী রঙ বেছে নিন। একই ভাবে এর বিপরীত প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে পারেন রঙের কম্বিনেশনের বেলায়।

টাই ও পকেট স্কয়ারের বেলাতেই মাথায় রাখতে পারেন রঙ্গের কম্বিনেশন।

চেক ও স্ট্রাইপস

আপনি আপনার আলমারিতে আপনার শার্ট, টাই, পকেট স্কয়ার, স্যুটের মাঝে ফ্লেভার আনতে পারেন চেক ও স্ট্রাইপের মাধ্যমে। কিন্তু এই ক্ষেত্রেও আপনাকে কম্বিনেশনের ব্যাপারটা মাথায় আনতে হবে। খেয়াল রাখবেন আপনি যদি ঘন স্ট্রাইপ বিশিষ্ট কোনো টাই পড়েন তো আপনার শার্টের বা স্যুটের স্ট্রাইপটা যাতে হালকা হয়।

হালকা নাকি গাঢ়

ল্যাভেন্ডার মৃদু টাইপের রঙ যাকে আবার গোলাপির ভাই বলে গণ্য করা হয়। ল্যাভেন্ডার নীল এবং ধূসরের সাথে ভালো যায়। আপনি যদি মনে করেন যে আপনি গাঢ় রঙের কিছু পড়লে বেশি আত্নবিশ্বাসী হিসেবে নিজেকে কল্পনা করতে পারেন তো তা ই সই। তবে গাঢ় এর সাথে হালকার কম্বিনেশনটা রাখতে ভুলবেন না যেন। যেমন কোনো সলিড নেভি স্যুটের সাথে কমলা ও হালকা নীল রঙের চেক সার্টে নিজেকে কল্পনা করুন তো।

স্যুটের সাথে স্নিকার ?

স্যুটের সাথে স্নিকার নতুন কিছু নয়। যদি এটি কোনো রকম ট্রেডিশনাল স্টাইল নয়। আজকাল অনেককেই এই যুগল বন্ধীতে হাঁটতে দেখা যায়। এখন আপনি যদি আপনার আলমারির সাজসজ্জাকে একটু অ্যাডভেঞ্চারের লুক দিতে চান তো সা্থে নিজেকেও তো স্যুটের সাথে যোগ করুন স্নিকার। এখন কোন স্যুটের সাথে কোন স্নিকার? তার ধারণা আপনি ধীরে ধীরে নিজ থেকেই পেয়ে যাবেন।

 

হাঁটুন স্নিকারের সাথে নিত্যদিন

ছুটির দিনে হঠাৎ অফিসের মিটিং পড়ে গিয়েছে? এই ক্ষেত্রে সেমি ফর্মাল পোশাক নির্বাচন করতে গিয়ে আপনি নিশ্চয় একটু চিন্তিত হয়ে পড়বেন। আপনি ছুটির দিনটাতে নিশ্চয়ই আরামদায়ক কোনো পোশাক পরিধান করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন। কিন্তু যেহেতু আপনাকে মিটিং এর খাতিরে ফর্মালও থাকতে  হবে তাই সেমি-ফরমাল ধরনের পোশাকের কথাই বিবচনায় আনবেন। ফরমাল ক্লাসিক স্যুটের সাথে  Adidas এর  Stan Smiths মত লো-স্নিকার আপনাকে সেমি-ফর্মাল লুক দিতে সক্ষম। এই ক্ষেত্রে আপনি সাদা শার্ট বা স্যুটের শরণাপন্ন হতে পারেন। যেহেতু সাদা রঙ কম বেশি সব রঙের সাথেই মানানসই তাই সাদাকেই নির্বাচন করা উত্তম এই ক্ষেত্রে। সুন্দর ও ক্লাসিক কলারওয়ালা শার্ট পড়ুন। মানুষ ভাববে যে আপনি কত ফর্মাল ও মানানসই। কিন্তু আপনিই কেবল জানেন এর তলের খবর।

সৃজনশীল কিছু

সাদা শার্ট, কালো স্যুট আর এর সাথে টাই। একেবারে ফর্মাল লুক। এর সাথে দুই রঙা চামড়ার স্নিকার আনতে পারে দারুণ এক কম্বিনেশন। কিন্তু এ ক্ষেত্রে আপনাকে খেয়াল  রাখতে হবে যে স্নিকারটি যেন গাঢ় রঙের হয়। স্নিকারের ২ রঙের কম্বিনেশনটা যেন এমন ছদ্মবেশী ধরণের হয় যে তা আপনার স্যুটের সাথে মানানসই বলে মনে হয়। আর আপনি একই পোশাকে ফর্মাল মিটিং ও সারলেন আবার অন্যদিকে পার্টিতেও জয়েন করতে পারবেন।

ফিতার ঝামেলা থেকে রেহাই

স্যুটের সাথে ক্যজুয়াল লুকের জন্য স্নিকারের ফিতার কারসাজী করার কোনো প্রয়োজন নেই। অফিস সময়ের বাইরে তাই আপনাকে আপনার স্নিকারের ফিতা নিয়ে টানাটানি করার ঝামেলা পোহাতে হবে না।

তবে আপনাকে কিছু ভালো অঙ্কের টাকা গুণতে হবে এই আকর্ষণীয় সুবিধাদাতা স্নিকারের পিছনে। যা কিনা আপনি যত্ন করে রেখে দিতে পারেন কোনো বিশেষ অনুষ্ঠানের জন্য। এটি কেবল পড়তেই মজার নয়, পায়ে এক জোড়া স্নিকার আপনার আধুনিক রুচি বোধকে তুলে ধরতে সক্ষম। স্নিকারকে বাইরের দিক থেকে দেখতে অনেকটা ফর্মালই বলে মনে হয়। আর নির্দিষ্ট পোশাকের সাথে একটু বুদ্ধি খাটিয়ে একে পড়লে তা আরো ফর্মাল লুক এনে দেয়। এতে করে এক দিক দিয়ে আপনি ভালো ভালো মন্তব্যও শুনতে পারবেন অন্য দিকে তুলনামূলক আরমও অনুভব করতে পারবেন।

Facebook Comments