মৃতদেহের চামড়া দিয়ে কী করত ‘ধর্ষক’ রাম রহিম সিং!

0
34

ডেরা সচ্চা সওদায় পুলিশি অভিযান একের পরে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য তুলে আনছে ধর্ষক বাবা গুরমিত রাম রহিম সিং সম্পর্কে। এবারে রহস্য একটি স্কিন ব্যাংকে ঘিরে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, ডেরা সচ্চা সওদার মধ্যে চালু এক স্কিন ব্যাংকে পুলিশ সিল করেছে।

গতকাল শনিবারেও অব্যাহত ছিল ডেরায় তল্লাসি অভিযান। সেখানেই তল্লাসি দলের স্বাস্থ্য বিষয়ক অনুসন্ধানকারীরা ডেরার হাসপাতালে অভিযান চালান এবং বিনা লাইসেন্সে চালু স্কিন ব্যাংকটিকে সিল করেন।

প্রসঙ্গত, স্কিন ব্যাংক বিষয়টি অনেকটা ব্লাড ব্যাঙ্কের মতো। এখানে মৃতদেহের ত্বক সংরক্ষিত রাখা হয়। এই ত্বক সাধারণত পুড়ে যাওয়া অথবা অ্যাসিড অ্যাটাকে আক্রান্ত মানুষের ত্বক প্রতিস্থাপনে ব্যবহৃত হয়। ২০১৬ সালেড় ডিসেম্বরে এই স্কিন ব্যাংক উদ্বোধন করা হয়েছিল। রাম রহিমের দাবি অনুযায়ী, এটি উত্তর ভারতের প্রথম স্কিন ব্যাংক। যে কোনও ব্যক্তি তার ত্বককে এখানে দান করতে পারতেন। আর তার নিয়মাবলি দেহদানের মতোই।

আপাতত স্কিন ব্যাংকে পুলিশি তালা। সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, এখানে ঠিক ক’টি মৃতদেহ জমা পড়েছিল এবং তাদের নিয়ে কী করা হয়, তার কোনও হিসেব নেই। এখানেই আশ্চর্য, ঘটা করে উদ্বোধন এবং বিপুল জাঁকজমক সহকারে প্রচার করা এই স্কিন ব্যাংকের কোনও লাইসেন্সই ছিল না।

Facebook Comments