‘আমাদের উন্নয়ন দরিদ্র মানুষের কাছে পৌঁছেছে’

0
115

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের লক্ষ্যটাই হচ্ছে গ্রামের অর্থনীতিকে উন্নতি করা। মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন। আমাদের উন্নয়নের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যেটা আয় বৈষম্য হ্রাস ও দরিদ্র বৈষম্য হ্রাস করতে পেরেছি। তৃণমূল পযায়ে মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়েছে। আমাদের উন্নয়নটা দরিদ্র মানুষের কাছে পৌঁছেছে। এটাই আমাদের নীতি মালা। তেল মাথায় তেল দেয়া নয়, ধনীকে আরও ধনী করা নয়। উন্নয়নটা যেন হতদরিদ্র মানুষের দৌড়গোড়ায় পৌঁছাতে পারি সেভাবেই আমরা কাজ করেছি।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আজ রাতে জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে সমাপনী বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ১৪টি বাজেট দিয়েছি। যেভাবে আমরা বাজেট দিয়েছি তাতে কিন্তু জনগণের কল্যাণ হয়েছে। আয় বৃদ্ধি পেয়েছে, জনগণ অর্থনৈতিক ভাবে সাবলম্বি হয়েছে। এটাই হলো বাস্তবতা। মাননীয় অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি দিনরাত পরিশ্রম করেছেন। বাজেট দেওয়ার আগে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। বাজেট দেওয়ার আগে আলোচনা করে মানুষের প্রত্যাশা জেনেই কিন্তু সে অনুযায়ী বাজেট দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিরোধী দলের দাবির পরিপ্রেক্ষিতিই কিন্তু এই ভ্যাট স্থগিত করা হয়েছে। বিরোধী দলীয় নেতা বলেছেন, এতে হয়তো ক্ষতি হবে। ক্ষতি কিন্তু হয়েছে। এই ভ্যাট ও মোবাইল ফোনের আয় ধরেই কিন্তু বাজেট করা হয়েছিল। ভ্যাট স্থগিত করায় ২০ হাজার কোটি টাকা কম রাজস্ব আদায় হবে। আমাদেরকে যেভাবেই হোক একটা ব্যবস্থা করতে হবে। হয় আমাদেরকে ব্যাংক থেকে লোন নিতে হবে অথবা আমাদের উন্নয়ন বাজেট কাটছাট করতে হবে। তারপরও মাননীয় সংসদ সদস্যদের মতামতের প্রতি অর্থমন্ত্রী সম্মান দিয়েছেন এবং ভ্যাট স্থগিত করেছেন। এটা বাস্তবতা। তিনি বলেন, আমরা যেভাবে বাজেট বৃদ্ধি করেছি, এতবড় বাজেট এর আগে কখনও কিন্তু দেওয়া হয়নি। আমি সংসদ সদস্যদের প্রতি অনুরোধ করবো নিজ নিজ এলাকায় উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যয়টা যেন সঠিক ভাবে হয় সেটা নিশ্চিত করা।

Facebook Comments