টিনএজ ফ্যাশনে কানের দুল

0
360

নারীর সাজের অনন্য উপকরণ হলো কানের দুল। আর অলংকার বলতে মেয়েরা সবার আগে হাতে তুলে নেয় কানের দুল। কানের দুল হল সেই অলংকার যা নারীর ব্যক্তিত্বকে ফুটিয়ে তোলে। একটা সময় ছিল যখন স্বর্ণ, আর এমিটেশন দুলের ব্যাপক ব্যবহার ছিল। তবে হাল ফ্যাশনে সব বয়সী নারীর মাঝেই জনপ্রিয়তা পাচ্ছে জাংক জুয়েলারি।

মেটাল, বিডস, পিতল, বাঁশ, কাঠ, হাড়গোড়, মাটি, সুতা, ধাতু, পালক, নারকেলের মালা, ঝিনুক, শামুকের খোলাসহ নানা উপকরণ দিয়ে তৈরি এসব কানের দুলের নকশায় করা হচ্ছে নানা রকম এক্সপেরিমেন্ট। নকশাতে এখন আদিবাসী থিমও চলছে বেশ। কানপাশা, মিনা করা ঝুমকা, নকশার ঝুমকা, মাকড়ি, কলকা, চুড়, ঘণ্টিসহ নানা ডিজাইন রয়েছে এসব কানের দুলে।

টিনএজ ফ্যাশনের সঙ্গে মিলিয়ে এখন বাজারে এসেছে হালকা ও হেভি মেটালের আর কানের দুল। এতে ফুটে উঠেছে এন্টিক ও ট্রাইভাল লুক। টপস, ফতুয়া, জিনস, ক্যাপ্রি, শার্ট কিংবা স্কার্টসহ শাড়ির সঙ্গেও চমৎকার লাগবে এগুলো, আবার দামটাও কম। বিভিন্ন ডিজাইনের মেটালের ওপর স্টোন বসানো, স্টোনের, সিলভারের ওপর পলিশ করা আর আর্টিফিশিয়াল মুক্তার ছোট বড় দুলের চাহিদা বরাবরই। একটু দামের মধ্যে কিনতে চাইলে রুবি, পান্না, আনকাট ডায়মন্ডের কানের দুল কিনতে পারেন।

সাধারণত সুতি শাড়ি ও সালোয়ার-কামিজ এবং টপস, ফতুয়ার সঙ্গে কাঠ, পিতল, কাঁসা, শোলা, মাটি, পুঁতিসহ এ ধরনের নানা উপকরণের কানের দুল মানিয়ে যাবে বেশ। আবার ঝলমলে বুননের সিনথেটিক কাপড়ের শাড়ি ও সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে ধাতু আর স্টোনের কানের দুল চমৎকার লাগবে।

মাদুলি, আড়ং, পিরান, বিবিয়ানা, দেশাল, রঙসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস, আজিজ সুপার মার্কেট, নিউমার্কেট, গাউসিয়া, নাভানা টাওয়ার, কর্ণফুলি গার্ডেন সিটি, বসুন্ধরা সিটি, মৌচাক মার্কেট, ইস্টার্ন প্লাজা, গুলশান মার্কেটসহ বিভিন্ন মার্কেট ও শপিংমলে পাবেন আপনার ঈদের পোশাকের সঙ্গে মানানসই চুড়ি আর কানের দুল।

Facebook Comments