ব্রণ ও ব্ল্যাক হেডস থেকে মুক্তির উপায়

0
824

ব্রণ ও ব্ল্যাক হেডস নিয়ে অনেকেই বেশ অস্বস্থিতে থাকেন। অথচ একটু সচেতন হলেই এই অস্বস্থি থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

 

ব্রণ থেকে মুক্তির উপায়
   ১. প্রচুর পরিমাণে পানি, তরল খাবার, মৌসুমি ফল ও শাকসবজি খেতে হবে
   ২. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার জন্য প্রতিদিন সকালে দাঁত ব্রাশের পর খালি পেটে কুসুম গরম পানিতে ইসবগুলের ভূসি ভিজিয়ে খান।
   ৩. ত্বক তৈলাক্ত হলে নিয়মিত পরিষ্কার করুন। গায়ে মাখার সাবান মুখে ব্যবহার না করাই ভালো। মুখ পরিষ্কার করার জন্য ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির ফেসওয়াশ পাওয়া যায়। কিছুদিন ব্যবহারেই বুঝতে পারবেন কোন ফেসওয়াশটা আপনার ত্বকের উপযোগী।
একই ফেসওয়াশ দীর্ঘদিন ব্যবহার করা অনুচিত। ফেসওয়অশের পিএইচ দেখে কিননু। কিছু ফেসওয়াশের গায়ে কোনটা কোন ত্বকের জন্য উপযোগী, তা লেখা থাকে। (পিএইচ বিষয়ে ফেসওয়াশের গায়ে লেখা থাকে।)
   ৪. বর্তমানে নারী-পুরুষ উভয়েরই উপটান পাওয়া যায়। উপটানে রাসায়নিক পদার্থ থাকে না। উপটানের প্যাকেটে ব্যবহারবিধি লেখা থাকে। ত্বক পরিষ্কারের জন্য উপটান খুব উপকারী। প্রতিষ্ঠিত ও বহুল প্রচলিত কোম্পানির উপটান কেনাই ভালো।
   ৫. প্রতিটি সুস্থ্য মানুষের জন্য দৈনিক সাত থেকে আট ঘন্টা ঘুম প্রয়োজন।
   ৬. যাঁরা রোদের জন্য সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন, তাঁরা ঘরে ফিরে দ্রুত মুখ ধুয়ে ফেলুন।
   ৭. বাড়ি ফিরেই ভালোভাবে মেকআপ তুলে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
৮. নখ দিয়ে ব্রণ খুটবেন না। সুযোগ পেলেই চোখ খোলা রেখে স্বাভাবিক পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এতে মুখে জমে থাকা ধূলা ও তেল পরিষ্কার হবে।

ব্ল্যাক হেডস
প্রতিদিন গোসলের মতোই প্রতিদিন মুখ পরিষ্কার করা প্রয়োজন। রোদ, ধূলাবালি, ত্বকের মরা কোষ জমে অনেক সময় ত্বকের ছিদ্র বন্ধ করে দেয়। পরিণামে ছিদ্রে ময়লা জমে তা ফুলে ওঠে। তাতে বাসা বাঁসে ক্ষুদ্র পরজীবী। যা চুলকায়, ব্রণের মতো দানাদার এবং কালচে হয়ে যায়। দীর্ঘদিন এই দানা থাকলে তা দীর্ঘস্থায়ী হয়ে যায়। দীর্ঘদিন এই দানা থাকলে তা দীর্ঘস্থায়ী কালচে দাগে পরিণত হয়। একে বলে ব্ল্যাক হেডস।

ব্ল্যাক হেডস হলে করণীয়
   ১. যাঁরা মুখের লোম তোলেন, তাঁরা খেয়াল রাখবেন, যেন নোংরা সুতা ও মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধনীর ব্যবহার না হয়।
   ২. খালি পেটে অতিরিক্ত দুধ-চা, কড়া লিকারের কফি বর্জনীয়। মাদকদ্রব্য, ধূমপান শুধু ত্বক নয়, পুরো দেহের জন্য বর্জনীয়।
   ৩. পুরুষেরা প্রতিষ্ঠিত কোম্পানির আফটার শেভ লোশন ব্যবহার করুন। ত্বকের ধরণ বুঝে প্রয়োজনে বিরতি দিয়ে শেভ করুন।
   ৪. ত্বকের যেযকোনো সমস্যা থেকে মুক্তির জন্য রোদ থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে চলুন। এ ক্ষেত্রে ছাতা খুব উপযোগী।

Facebook Comments