‘শেখ হাসিনার অধিনেই আগামী সংসদ নির্বাচন’

0
215

মনজুর আহমেদ,আবুধাবি ইউএই থেকে: বর্তমান সরকারের হাত ধরে বাংলাদেশ একটি উন্নত বিশ্বের কাতারে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি -১৭) আমিরাতের রাজধানী আবুধাবী কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে ইন্টার কন্টেনেল্টাল হোটেলে আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম আরও বলেন, খালেদা জিয়া হটকারী করে ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে অংশ না নিয়ে দলটিকে বিলুপ্তের দিকে ঠেলে দিয়েছেন। শেখ হাসিনার অধিনে আগামি সংসদ নির্বাচন হবে। বাংলার জনগন তাদের রায় দিয়ে বর্তমান সরকারের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করার জন্য আওয়ামীলীগ কে আবার ক্ষমতার মসনদে বাসাবেন।

একই অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির দলের ক্ষতি হয় এমন বেফাঁস কথা বার্তা থেকে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন।

পরিষদের সভাপতি ইফতাখার হোসেন বাবুলের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক নাছির তালুকদারের সাঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছাড়াও আমিরাতের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে মুজিব আদর্শের নেতা কর্মীরা বক্তব্য রাখেন।

পরিষদের সভাপতি ইফতেখার হোসেন বাবুল বলেন, শেখ হাসিনা বিশ্বের কাছে এক কোটি উন্নয়নের মডেল। দেশের মানুষের কাছে এখন একটি বিশ্বাস জন্ম নিয়েছে শেখ হাসিনা ছাড়া দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়।

ইচ্ছা থাকার পরও দেশটি কিছু সীমা বদ্ধতার কারণে প্রবাসীদের সেবা দিতে একটু বেগ পেতে হয় বলে জানান আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ডা.মুহাম্মদ ইমরান। তিনি আরো বলেন, সরকারের উন্নয়নে তারা কাজ করে যাচ্ছেন।

আওয়ামীলীগের সকল নেতা কর্মীদের উচিৎ দৃষ্টি ভঙ্গির পরিবর্তন করে দলের জন্য কাজ করে গেলে দ্রুত দেশের উন্নয়ন সম্ভব বলে দাবী চট্টগ্রাম সিটি মেয়রের।তিনি আরো বলেন আরব আমিরাতে বেশিরভাগই প্রবাসী চট্টগ্রামের তাই চট্টগ্রাম বিমানবন্দর দিয়ে যেকোনো প্রবাসী হয়রানির শিখার হলে তাকে একটু জানালে তিনি ব্যবস্তা নিবেন বলে জানান।

দেশে আর কোন সময়িক শাসক আসবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। বিএনপির চেয়ার পার্সন খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ না নিলেও শেখ হাসিনার অধিনে আগামীতে অবাধ ও নিরপক্ষ নির্বাচন করার ঘোষণা দেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

এসময় প্রবাসীরা তাদের বক্তব্যের মাঝে বিমান বন্দরে অহেতুক হয়রানী সহ নানা দাবী দাওয়ার কথা তুলে ধরলে চট্টগ্রামের মেয়র তা বন্ধের আশ্বস্ত করেন। একজন মন্ত্রী ও মেয়রকে একসাথে পেয়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে প্রবাসী আওয়ামী পরিবারের মাঝে।

Facebook Comments