চলে গেলেন অভিনেতা পীযূষ না ফেরার দেশে

0
591

অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মেনে পরপারে চলে গেলেন কলকাতার টিভি, মঞ্চ ও চলচ্চিত্রের প্রখ্যাত অভিনেতা পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় (৫০)। শনিবার রাত সাড়ে তিনটায় কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে গত চার দিন ধরেই তার শারীরিক অবস্থা ছিল অত্যন্ত সংকটজনক। দক্ষিণ কলকাতার যে নার্সিংহোমে তিনি ভর্তি ছিলেন, সেখানকার চিকিৎসকেরা শনিবার সন্ধ্যায়ই জানিয়েছিলেন, ভেন্টিলেশনে থাকা সত্ত্বেও তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। রক্তচাপ যথেষ্ট কম ছিল তার। সঙ্গে ছিল ধুম জ্বর। যকৃৎসহ বিভিন্ন অঙ্গ ভালোভাবে কাজ করছিল না। চিকিৎসায় খুব একটা সাড়া মিলছিল না।

নার্সিংহোম সূত্র জানায়, পীযূষের ডান হাত, ডান পা এবং বুকের ডান দিকের পাঁচটি পাঁজর ভেঙে গিয়েছিল। মারাত্মক চোট ছিল মুখের দুই পাশে ও কপালে। প্রচুর রক্তপাত হওয়ায় এবং হাড় ভেঙে অস্থিমজ্জা রক্তে মিশে যাওয়ায় রক্তে সংক্রমণ বাড়ছিল।

দুর্গাপূজার সপ্তমীর সন্ধ্যায় কোনা এক্সপ্রেসওয়ে সড়কে গাড়ি চালিয়ে হাওড়ার দিকে ফিরছিলেন পীযূষ। তার সঙ্গে সামনের আসনেই ছিলেন নৃত্যশিল্পী মালবিকা সেন। সাঁতরাগাছি সেতুতে একটি লরির সঙ্গে সংঘর্ষে গাড়িটি একেবারে দুমড়ে যায়। মালবিকা দেবীকে চিকিৎসার পরে ছেড়ে দেওয়া হলেও গুরুতর আহত পীযূষের অবস্থার উন্নতি হয়নি। শেষ পর্যন্ত আর বাঁচিয়ে রাখা যায়নি তাকে।

ভারতীয় বেশ কিছু বাংলা টিভি চ্যানেল বাংলাদেশে দেখা যাওয়ার সুবাদে এ দেশেও এই অভিনেতা হয়ে উঠেছিলেন পরিচিত মুখ। চলতি কয়েকটি সিরিয়ালেও দেখা যাচ্ছিল তাকে। তিনি চলে যাওয়ায় বাংলাদেশি অনেক দর্শকই এই অভিনেতাকে খুব মিস করবেন। তার মৃত্যুতে কলকাতার সংস্কৃতি অঙ্গনেও নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

মুক্তসংবাদ.কম/এআই

Facebook Comments