আঁধারে ফুটপাথে খাবার বিক্রি করতে বসেন এই অভিনেত্রী!

0
38

সূর্যের আলোয় সেজেগুজে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে মানুষকে বিনোদিত করা। এরপর মেকআপ মুছে রাতে আঁধারে ফুটপাথে খাবার বিক্রি করতে বসা।

অনেকটা গল্পের মতো হলেও এমনই সংগ্রামের জীবন মালায়ালাম সিরিয়ালের পরিচিত মুখ অভিনেত্রী কবিতা লক্ষ্মী।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবর, লক্ষ্মীর কাজ করেন মূলত টেলিভিশনে। সেটাই প্যাশন। কিন্তু যা উপার্জন তাতে সংসার চলে না। স্বামীবিহীন এক ছেলে ও মেয়ের দায়িত্বও আবার তাঁর কাঁধে। সুদিনের আশায় এক ট্রাভেল এজেন্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন কবিতা। সংস্থার তরফে তাঁকে পরামর্শ দেওয়া হয়, তাঁর ছেলেকে বিদেশে পাঠাতে। সেখানে পার্ট টাইম কাজ করে ছেলে প্রায় ১০ পাউন্ড করে আয় করতে পারবে, আশা ছিল এমনটাই। পাশাপাশি একটি কোর্স করে নিজের জীবনে প্রতিষ্ঠিতও হতে পারবে।

সেই ভরসাতেই বুক বেঁধেছিলেন কবিতা। কিন্তু ছেলে উপার্জন করতে পারেনি সে অর্থে। উল্টো কোর্স ফি হিসেবে কবিতাকেই মোটা অংকের টাকা দিতে হয়। সব মিলিয়ে অবস্থা যা, তাতে ছোট পর্দায় অভিনয় করে আর চলে না। ফলে শুটিংয়ের কাজ শেষ হলে রাস্তায় খাবার বিক্রি করেন তিনি। ছোট একটা খাবারের দোকান আছে। নিজেই সেখানে রান্না করেন। এভাবেই দিন চলে যায় লহ্মীর। অবশ্য হাসপাতালের কাছে হওয়ায় রাতে বিক্রিটাও ভাল হয়।

এক দক্ষিণী অনলাইন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, আপাতত দুটি সিরিয়ালের কাজ করছেন তিনি। সংসার চালানোর জন্য খাবার বিক্রি করতে হয়। তবে তার জন্য অভিনয় ছাড়েননি। পাশাপাশি খাবার বিক্রি করাকেও কখনও ছোট করেননি। জীবনে এভাবেই উপার্জন আর প্যাশনের ভারসাম্য খুঁজে নিয়েছেন তিনি।

Facebook Comments